4 weeks ago
হে মু‌মিনগণ! তোমা‌দের ওপর রোজা ফরজ করা হ‌য়ে‌ছে, যেম‌নিভা‌বে ফরজ করা হ‌য়ে‌ছিল তোমা‌দের পূর্বব‌র্তি‌দের ওপর। যা‌তে তোমরা তাকওয়া অর্জন কর‌তে পা‌রো। [সূরা বাকারা-১৮৩]
4 weeks ago
কুরআন নাযিলের মাসে কুরআন তিলাওয়াতের পাশাপাশি সমাজে কুরআন-সুন্নাহর আইন ও আদর্শ প্রতিষ্ঠার শপথ নিন- ইশা ছাত্র আন্দোলন
4 weeks ago
এই রমযান মাসেই মানুষের জন্য হেদায়েত এবং সত্যান্বেষীদের জন্য সুস্পষ্ট পথনির্দেশ নিয়ে কুরআন নাজিল হয়েছে; যা হক ও বাতিলের মাঝে পার্থক্যকারী। [সুরা বাকারা: ১৮৫]
4 weeks ago
সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় নীতির পরিবর্তন চাই- ইশা ছাত্র আন্দোলন
1 month ago
বাজেট হতে হবে শিক্ষা ও উদ্যোক্তাবান্ধব এবং কর্মসংস্থানে থাকতে হবে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা- এম হাছিবুল ইসলাম, সেক্রেটারি জেনারেল, ইশা ছাত্র আন্দোলন

প্রবা‌স জীবন! কেমন আ‌ছেন তাঁরা?

গতকাল সৌদি আরবের হাইল প্রদেশের হুলাইফা এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে চার বাংলাদেশি পরিবারের ছয়জন মারা গেছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন আ‌ছেন একজন।

প্রায়শই মধ্যপ্রাচ্যসহ অ‌নেক দে‌শে শ্র‌মিক ও কর্মচা‌রি হতাহ‌তের ঘটনা ঘ‌টে। নির্যা‌তিত হন অ‌নে‌কেই। অথচ ঘাম, রক্ত, জীবন দিয়েও পরিবার ও দেশের ভাগ্য পরিবর্তনে ভূমিকা রাখেন তাঁরা৷ গত চল্লিশ বছরে বিদেশ থেকে তাঁরা ১০ লাখ ৪৬ হাজার ৩২ কোটিরও বেশি টাকা পাঠিয়েছেন বাংলাদেশে৷ সরকার কি তাঁদের জন্য বেশি কিছু করেছে?

ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় বাংলাদেশিদের বিদেশে পাড়ি জমানোর প্রবণতা উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে৷ এর পাশাপাশি প্রবাসে নির্যাতনও বাড়ছে আশঙ্কাজনক হারে৷ প্রায় নিয়মিতই আসছে মৃত্যুর খবর৷ পরিবারে সুদিন ফেরানোর আশায় বিদেশে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরছেন অনেকে৷ গত এক দশকে ২৫ হাজার ২২৯ জন ফিরেছেন লাশ হয়ে৷

তাদের মধ্যে ১৮২ জনের মৃত্যুকেই খুব স্বাভাবিক বলা যায় না৷ অধিকাংশেরই মৃত্যুর কারণ মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, হৃদরোগ, কর্মক্ষেত্র বা সড়ক দুর্ঘটনা কিংবা ক্যানসারের মতো জটিল কোনো রোগ৷

প্রবাসে একা থাকা, নিজের ও পরিবারের ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা, খারাপ পরিবেশে কাজ করা ইত্যাদি কারণে হৃদরোগ বা মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ বয়স ৩৫ হওয়ার আগেই অনেকের জীবন প্রদীপ নিভিয়ে দিচ্ছে৷

সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রায় ১কো‌টি বাংলাদেশি কাজ করছেন৷ এর মধ্যে প্রায় ৫০ লক্ষই আছেন সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, কাতার, ওমানসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে৷ ওই দেশগুলোতে কাজের সার্বিক পরিবেশ খারাপ, শ্রমিক নির্যাতনও বেশি৷

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড জানাচ্ছে, গত এক দশকে বিদেশ থেকে ২২ হাজার ৬৫১ জনের লাশ ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে বাংলাদেশে এসেছে৷ এর মধ্যে ১২ হাজার ৫৫৭ জনই কাজ করতেন মধ্যপ্রাচ্যের কোনো-না-কোনো দেশে৷ ৫ হাজার ৭৩১ জন ছিলেন সৌদি আরবে, ২ হাজার ৫২০ জন সংযুক্ত আরব আমিরাতে, ২ হাজার ১৮৪ জন কুয়েতে, ১ হাজার ১০২ জন ওমানে, ৫৩৪ জন বাহরাইনে এবং ৪৮৬ জন কাতারে ভাগ্যান্বেষণে গিয়ে লাশ হয়ে ফেরেন৷

গত কয়েক বছরে নারীদের বিদেশ গমনও বেড়েছে৷ বিদেশে তাঁদের জীবন আরো কঠিন৷ দৈনিক ১৮ ঘণ্টা কাজ করেও অনেকে প্রাপ্য পারিশ্রমিক পান না৷ শারীরিক, মানসিক নির্যাতন তো আছেই, যৌন নিপীড়ন, এমনকি ধর্ষণের শিকারও হন অনেকে৷ নিয়োগকর্তা স্বজনহীন পরিবেশে অসহায়ত্বের সুযোগে নারীদের দেহ ব্যবসায় বাধ্য করছেন– এমন খবরও নতুন কিছু নয়৷ তবুও ভাগ্যান্বেষণে দেশ ছাড়তে হয়৷

কোনো সরকার কি ঘাম, রক্ত, এমনকি জীবন দিয়েও পরিবার ও দেশের সুন্দর আগামী নির্মাণে ভূমিকা রেখে যাওয়া এই প্রবাসী বাংলাদেশিদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য পর্যাপ্ত উদ্যোগ নিয়েছে?

#ইসলামী_শাসনতন্ত্র_ছাত্র_আ‌ন্দোলন সকল প্রবাসী ভাই-বোন‌দের প্র‌তি সহমর্মী ও তা‌দের শ্র‌মের প্র‌তি শ্রদ্ধাশীল। বাংলা‌দেশ কে বাংলা‌দেশ ক‌রে তোলার পেছ‌নে অবদান রাখা এই মানুষগু‌লো ভাল থাকুক সবসময়; এই প্রত্যাশায়…।

তথ্যসূত্র : ড‌য়ে‌চে ভে‌লে